রোহিঙ্গা ইস্যুতে কথা বলতে সু চি বিশেষ দূত পাঠাচ্ছেন বাংলাদেশে

ভিডিওটি দেখেছেন কি?

রোহিঙ্গা শরণার্থী ইস্যুতে মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চি তাঁর এক বিশেষ দূত পাঠাচ্ছেন বাংলাদেশে। বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন, রাখাইন রাজ্য থেকে পালিয়ে আসা হাজার-হাজার রোহিঙ্গা শরণার্থীদের অবস্থা

 

মূল্যায়নের জন্য মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সূ চি’র বিশেষ দূত শীঘ্রই বাংলাদেশ সফর করবেন।

বৃহস্পতিবার ঢাকায় মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ডেকে পাঠানো হয়। সেসময় মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত এই বিশেষ দূত পাঠানোর কথাটি বাংলাদেশকে জানান। এ প্রসঙ্গে পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক বলেন,” উনি আমাদের বলেছেন ওনাদের একজন স্পেশাল এনভয় আসবেন। ওনারা শীঘ্রই আমাদের জানাবেন কবে আসবেন। ” মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা মুসলমানদের হত্যা-ধর্ষণ-নির্যাতন বন্ধে কোন ভূমিকা না রাখায় আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাগুলো অং সান সু চি’র কড়া সমালোচনা করছে।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে জানানো হয়েছে যে রাখাইন রাজ্যে গত কয়েক মাসে রোহিঙ্গাদের উপর দমন-নিপীড়নের ঘটনায় প্রায় ৫০ হাজার মিয়ানমারের নাগরিক বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। বাংলাদেশর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে জানিয়েছে, সেদেশ থেকে পালিয়ে আসা নাগরিকদের অবশ্যই ফিরিয়ে নিতে হবে। বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব জানিয়েছেন, গত মঙ্গলবার বাংলাদেশি জেলেদের একটি নৌকায় মিয়ানমারের বাহিনীর গুলি করার ঘটনায় একটি প্রতিবাদ পত্র হস্তান্তর করা হয়েছে। তিনি জানান, জেলেরা বাংলাদেশর জলসীমায় থাকার পরেও মিয়ানমারের বাহিনী তাদের উপর গুলি চালিয়েছে।

একটি ভিডিও দেখুন

Loading...
Loading...